একটি শিক্ষণীয় গল্প, ২ মিনিট স’ময় লাগ’বে গপ্লটি পড়ে কিছুটা হলেও শি’খতে পারেন

একজন মহিলার একটি পোষা বেঁজি ছিল।বেঁজিটি খুব বিশ্বস্ত ছিলো।একদিন মহিলাটি তার শি’শুকে বেঁজিটির তত্বাবধানে রেখে বাইরে গেল।মহিলাটি বাসা থেকে বের হওয়ার কিছুক্ষনপর একটি কিং কোবরা সাপ বাসায় ঢুকলো।শি’শুটি সাপ দেখে ভয়ে কাঁদতে লাগলো।বেঁজিটি সাপটির উপর ঝাপিয়ে পড়লো ।

অনেকক্ষন লড়াই করার পর সাপটি মা’রা গেল । বেঁজিটি র’ক্তাক্ত মুখ নিয়ে বাসার গেটের সামনে মহিলাটির জন্য অপেক্ষা ক’রতে লাগলো।যখন মহিলাটি বাসায় আ’সলো তখনবেজিটিকে র’ক্তাক্ত অবস্হায় দে’খতে পেল।মহিলাটি ভাবলো বেঁজিটি হয়তো তার শি’শুকে কামড়িয়েছে।

তিনি একটি পানির পাত্র দিয়ে আঘা’ত করে বেঁজিটিকে মেরে ফেললো ।কিন্তু তিনি যখন ভি’তরে প্রবেশ করলেন তখন দে’খতে পেলেন ,শি’শুটির পাঁশে একটি মৃ’ত কিং কোবরা সাপ পড়ে আছে। তখন তিনি ভূল বুঝতে পারলেন।কিন্তু এতোক্ষনে যা হবার হয়ে গেছে।মৃ’ত বেঁজিটির জন্য চোখের পানি ফেলা ছাড়া তার কিছুই করার ছিল না ।#উপদেশ: যেকোন কিছু করার আগে একবারভেবে নিন,আপনি যা করছেন তা কি সঠিক?নিচেৎ পরবর্তীতে অনুশোচনা ছাড়া আপনার আর কিছুই করার থাকবেনা…