বাড়ি থেকে পালাতে গিয়ে পুলিশের হাতে ধরা পড়লো প্রেমিক-প্রেমিকা।

স্বামীকে ছে’ড়ে প্রেমিকের সঙ্গে থাকতে মি’থ্যা হ’’ত্যার নাটক তৈরি ক’রা হয়েছে নাটোরে। যেন রুপালি পর্দার অ’ভিনয়কেও হা’র মানে ওই গৃহব’ধূ ও তার প্রেমিকের কাছে। সিনেমা’র মতোই নাটক সাজিয়েছিলেন গৃহব’ধু মু’ক্তি। যা প্র’কাশ ক’রেছিলেন সামাজিক মাধ্যমে।

স্বামী-সংসার থাকার পরও তা গো’পন ক’রে অ’বিবাহিত ছেলের সঙ্গে প্রেমের স’ম্পর্ক গ’ড়ে তো’লেন সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজে’লার মু’ক্তি। সানোয়ার আহম্মে’দ আবিদ নামের ওই ছেলের সঙ্গে ৬-৭ মাস ধ’রে মোবাইল ফোনে নিয়মিত কথা হয় তার।

একপর্যায়ে ৩-৪ দিন আগে পা’লিয়ে গিয়ে মু’ক্তি নিজেকে মৃ’’তদে’হের মতো সা’জিয়ে ছবি তুলে তার স্বামীর একজন নিকট আ’ত্মীয়ের মোবাইল ফোনে পাঠায়। খু’ন হওয়ার বি’ষয় উল্লেখ ক’রে পাঠায় একটি ক্ষুদে বার্তাও। এতকিছুর পরও শে’ষ র’ক্ষা হয়নি তাদের।

তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় নাটোর জে’লা পু’লিশ ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া থেকে প্রেমিক আবিদসহ কথিত মৃ’’ত গৃহব’ধূ মু’ক্তিকে উ’’দ্ধার ক’রে নিয়ে আসে। বৃহস্পতিবার দুপুরে নাটোর পু’লিশ সুপারের অফিসে চত্বরে এক ব্রিফিংয়ে পু’লিশ সুপার লিটন কুমা’র সা’হা এসব ত’থ্য জানান।

তিনি জানান, পাবনা জে’লার ঈ’শ্বরদীর এলাকার বাসি’ন্দা ও মেডিকেল কোম্পানীর ‘বিক্রয় প্রতিনিধি আকমল হোসেনের স্ত্রী মু’ক্তির সাথে ফেসবুকে প্রেম হয় ময়মনসিংহের কেবল ব্যবসায়ী আবিদের। গত ১১ মে মু’ক্তি তার বাবার বাড়ি সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজে’লার কোন্দইল যেতে চান।

এজন্য আকমল হোসেন নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজে’লার রাজাপুরে লেগু’নায় তুলে দেন। এরপর প্রেমিক আবিদ সিরাজগঞ্জের হাটিকুমর’ুল থেকে মাইক্রোবাসে তু’লে নেয়। সেখান থেকেই ওই গৃহব’ধূ নিজেকে হ’’ত্যা ক’রাসহ তার সা’জানো লা’শের ছবি সামাজিক মাধ্যমে প্র’কাশ ক’রে।

পাশাপাশি প্রেমিককে দিয়ে ওই ছবি ও হ’’ত্যার ম্যাসেজ স্বামীর প’রিবারের কাছে পাঠায়। এ ঘ’টনায় ১১ মে বড়াইগ্রাম থা’নায় হ’’ত্যা মা’ম’লা ক’রেন আকমল হোসেন। এর প্রেক্ষিতে বুধবার রাতে নাটোর জে’লা পু’লিশ ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া থেকে প্রেমিক আবিদসহ কথিত মৃ’’ত গৃহব’ধূ মু’ক্তিকে উ’’দ্ধার ক’রে। দুপুরে উ’’দ্ধারকৃতদের আ’দালতের মাধ্যমে জে’ল হা’জতে পাঠানো হয়।