ছেলেদে’র যে ৫টি কথা’য় পুরোপুরি দু’র্ব’ল হ’য়ে যে’তে বাধ্য যে কো’নো বিবা’হিত মহি’লা’রা

কথাতে আছে নারীশক্তির এর কাছে হার মেনে যায় বহু তাবড় তাবড় পুরুষ । এ কথা অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই । কিন্তু কখনো কখনও এর উল্টোটা ঘটে ।ভিডিওটি দেখতে নিচের ছবির উপর ক্লিক করুন

পৃথিবীর সব নিয়ম যে এক জায়গায় একই নিয়মে হয় এমনটা কিন্তু নয় । কাজেই নারীশক্তির কে কাজে লাগাবার জন্য ও তাদের কে নিজের আওত্টাই আনার জন্য অনেকে অনেক রকমের চেষ্টা করছেন ।ভিডিওটি দেখতে নিচের ছবির উপর ক্লিক করুন কিন্তু কেউ কেউ সফল হলেও বেশির ভাগ মানুষ হয়েছে বিফল । তাই আজ আপনাদের সামনে বলতে এসেছি এমন বেশ কয়েক ধরনের কথা যেগু’’লো প্রতিটা নারী শুনতে চাই একটা ছেলের মুখ থেকে ।

‘’হতেই পারে আপনার কাউকে ভালো লাগে , কিছু বলতে পারছেন। না । কিন্তু এমন বেশ কিছু কথা আছে যেগু’’লি আপনি বলল সেই নারী আপনার প্রেমে আসক্ত ‘’হতে বাধ্য । তাই নারীকে খুশি করার জন্য একঝাঁক তরুণ গবেষণা করে সর্বশ্রেষ্ঠ কিছু বাক্য খুঁজে বের করতে সক্ষম হয়েছেন। আসুন জেনে নেওয়া যাক নারীকে খুশি করার সর্বশ্রেষ্ঠ কিছু বাক্য। আপনি নিশ্চই এটি মধ্যে জানতে উদগ্রীব যে কি সেই কথা । জানাবো আপনাদের বিস্তারিত ।

১) তোমাকে অনেক সুন্দর লাগছে:- এটি একটি অতি সাধারন কথা যা প্রতিটা নারী একটি ছেলের মুখ থেকে শুনতে চাই । সে সুন্দর হক বা না হোক এই কথাটা বললে সে আপনার প্রতি আকৃষ্ট ‘’হতে বাধ্য । কোনো পুরুষ যদি মুগ্ধতার বশে বলে নয়ে তোমাকে আজ বেশ সুন্দর লাগছে তাহলে নারীরা খুশি হয়ে যান। এই বাক্যটি তখন তাদের কাছে পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ বাক্য মনে হয়।

২) তুমি অনেক আবেদনময়ী:- অন্যান্য কথার সাথে এই কথাটাও অনেক প্রিয় একজন নারীর কাছে। পুরুষ স’’’ঙ্গীটি বেশি আবেদনময়ী বলে পছন্দ করেন এটি তার জীবনের সর্বশ্রেষ্ঠ সত্য বলে তার মনে হয়। ৩) তুমি কি আমা’র সাথে তোমা’র সারাটি জীবন কা’টাবে:- প্রতিটি মানুষের আলাদা কিছু স’ত্ত্বা রয়েছে। এ কারণে আলাদা স’ত্ত্বার মানুষগু’’লো ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে।

ভিন্ন ভিন্ন স’ত্ত্বার মানুষগু’’লোর জীবন স’’ঙ্গীকে প্রপোজ করার প’’দ্ধতিও ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে। একজন নারী বৈচিত্র্যপূর্ণভাবে প্রপোজে বেশি খুশি হয়।৪) তুমি আমা’র জীবনের সবচেয়ে প্রিয় মানুষ:- এমন কথা শুনতে কার না ভালো লাগে। একজনের জীবনের সবচেয়ে প্রিয় মানুষ এর চেয়ে বেশি পাওয়ার আর কি হকে পারে। এই ধরনের কথাতেও একজন নারী যার পর নাই খুশি হয়ে থাকেন।

৫) তুমি কি মনে করো:- প্রতিটা নারী চাই যে তার স’’’ঙ্গিনী তার ভাবনা কে মূল্য দিক । এই কথাটা আপনি আপনার স’’ঙ্গিনীকে বললে সে অনুমান করবে যে আপনি তার ভাবনা কে মূল্য দিচ্ছেন । যার ফলে সে খুশি হবে।