জিয়া, খালেদা, এরশাদরা দেশের মানুষের জন্য কিছুই করেনি: প্রধানমন্ত্রী

জিয়াউর রহমান, বেগম খালেদা জিয়া ও এইচএম এরশাদ দেশের মানুষের জন্য কিছুই করেনি বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার (১০ জানুয়ারি)

দুপুরে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের ৪৮ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় অনলাইনে যুক্ত হয়ে তিনি এই কথা বলেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, জিয়াউর রহমানের কথা বলি, এরশাদের কথা বলি, খালেদা জিয়ার

কথা বলি; যারাই ক্ষ’মতায় এসেছে তারাই নিজেদের ভাগ্য নিয়েই ব্যস্ত ছিল। ব্যস্ত ছিল অর্থ সম্পদ নিয়ে। মানুষের জন্য তারা কিছু করেনি। করলে যে করা যায়, সেটা আমরাই প্রমাণ করেছি। তিনি বলেন,

একটি জাতির জন্য ১২ বছর কিছু না। কিন্তু তারপরও আমরা যেভাবে এই দেশের জন্য কাজ করে যাচ্ছি, পথ দেখিয়ে যাচ্ছি- যদি এই পথ ধরেই এগুনো যায় তাহলে এদেশ অবশ্যই উন্নত-সমৃদ্ধ হবে।

শেখ হাসিনা বলেন, জাতির পিতা সাড়ে তিন বছরের মধ্যে একটি যু’দ্ধ বিধস্ত দেশকে স্বল্পোন্নত দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছিলেন। এরপর ২১ বছর এদেশের মানুষের জীবন থেকে সম্পূর্ণ হা’রিয়ে যায়।

সাধারণ মানুষ হয় বঞ্চনার শি’কার। কারণ এই ২১ বছর যারা ক্ষ’মতায় ছিল তারা নিজেদের ভাগ্য গড়তেই ব্যস্ত ছিল। যদিও তারা ছেঁড়া গেঞ্জি আর ভাঙা সুটকেসের গল্প শুনিয়েছে। কিন্তু ভাঙা সুটকেসই যাদুর বাক্স হয়ে গিয়েছিল আর ছেঁড়া গেঞ্জি তো তখন ফ্রেঞ্চ শিফন।

যুনলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশের সভাপতিত্বে পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল। অনেককে এই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হলেও ক’রোনা সং’ক্র’মণ ও ব’য়সজনিত জটিলতায় অনেকেই উপস্থিত হতে পারেননি। তবে সংগঠনের সাবেক বি’তর্কি’ত চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরীকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি।