মান্নার কবর নিয়ে গুজব না ছড়াতে স্ত্রী’’ শেলীর অনুরোধ

ঢাকাই সিনেমা’র দাপুটে চিত্রনায়কদের একজন মান্না। ২০০৮ সালের এ দিনে (১৭ ফেব্রুয়ারি) মাত্র ৪৪ বছর বয়সে হৃদরোগে আ’ক্রান্ত হয়ে মৃ’ত্যুবরণ করেন তিনি। ১৩ বছর পেরিয়ে গেলেও মান্নার মৃ’ত্যু শোক আজও বয়ে বেড়াচ্ছেন তার স্বজন ও কোটি ভক্তরা।

মৃ’ত্যুর পর টাঙ্গাইলে পারিবারিক কবরস্থানে মান্নাকে দাফন করা হয়। দাফনের পর থেকেই কবরটি বাঁ’ধানো হয়নি। এ নিয়ে বিভিন্ন সময়ে নানা কথা শুনতে হয়েছে তাদের পরিবারকে। সম্প্রতি গুজব ছড়িয়েছে, মান্নার কবর নিশ্চিহ্ন করে জায়গাটি ভরাট করে ফেলা হয়েছে। প্রয়াত এই অ’ভিনেতার কবর নিয়ে গুজব না ছড়ানোর অনুরোধ জানিয়েছেন তাঁর স্ত্রী’’ শেলী মান্না।

তিনি বলেন, ‘আমি কয়েক দিন ধরে শুনছি ও দেখছি, অনেকেই বলছেন আম’রা নেতিবাচক উদ্দেশ্য নিয়ে মান্নার কবর ভরাট করেছি। কিন্তু কেনো ভরাট করা হয়েছে, সেটা তারা জানেন না। কারণ অনেকদিন ধরেই বৃষ্টি নামলে সেখানে পানি জমতো। যে কারণে আম’রা পারিবারিকভাবে কবরস্থানটি ভরাট করিয়েছি। এখন আলাদাভাবে কবরের কিছু নেই। আম’রাই শুধু জানি কার কবর কোথায়। আগামী দুই মাসের মধ্যে আম’রা কাজ শুরু করব।’

প্রতি বছর দূরদূরান্ত থেকে মান্নার ভক্তরা প্রিয় অ’ভিনেতার সমাধিস্থলে গিয়ে হাজির হন। কবর জিয়ারত এবং ফুল দিয়ে প্রয়াত অ’ভিনেতাকে শ্রদ্ধা জানান। অনেকেই নিজ উদ্যোগে দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের ব্যবস্থা করেন। তাই স্বাভাবিকভাবেই তাদের মনে প্রশ্ন জাগে- মান্নার কবর কেন বাঁ’ধানো হয়নি, কেন অবহেলায় ফেলে রাখা হয়েছে?

তবে শেলীর মতে, মান্নার ভক্তদের মধ্যে অনেক রকম পাগলামি আছে। তারা অনেকেই খুব আবেগপ্রবণ। এসবই প্রিয় তারকার প্রতি তাদের ভালোবাসার প্রকাশ। এর মাঝে অনেকেই কেবল সমালোচনা করার জন্য আসেন।

তিনি বলেন, ‘এখন মান্নার কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানোর মতো অবস্থায় নেই। দেখা যাবে, এই ভক্তরা এসে কবরটি খুঁজে না পেয়ে আরেক জায়গায় ফুল দিয়েছেন। সেটার ছবি তুলে আবার কেউ কেউ নতুন করে গুজব ছড়াবেন। এ নিয়ে উল্টাপাল্টা খবর প্রকাশিত হবে, যা নতুন করে আলোচনার খোরাক জোগাবে। এই জন্য আমি মান্নার ভক্তদের অনুরোধ করব, এই মুহূর্তে মান্নার কবরের আলাদা কোনও মা’র্কিং দেয়া নেই। আপনারা অনেকেই এসে হতাশ হবেন। অনুরোধ করব এই বছরটা কবরে না গিয়ে যার যার জায়গা থেকে এলাকার কবর জিয়ারত করে মান্নার আত্মা’র জন্য দোয়া করবেন।’

এদিকে আজ (১৭ ফেব্রুয়ারি) মৃ’ত্যুবার্ষিকী’’ উপলক্ষে মান্না স্ম’রণে বাদ আসর রাজধানীর বসুন্ধ’রার বাসায় দোয়া ও কোরআন খতমের আয়োজন করেছেন মান্নার স্ত্রী’’ শেলী মান্না। এছাড়া মান্নার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান কৃতাঞ্জলি কথাচিত্র থেকেও আলাদাভাবে দোয়ার আয়োজন করা হয়েছে