অ’ভিভাবক হা’রানোর শো’ক অনুভব করছি: শাকিব খান

“বাংলা চলচ্চিত্রের যারা পথ;প্রদর্শক, একে একে তারা চলে যাচ্ছেন। সেই কাতারে এবার কিং;বদন্তি এটিএম শামসুজ্জামান। তিনিও বিদায় নিলেন।”বরেণ্য অ’ভিনেতা এ টি এম শামসুজ্জামানের মৃ;ত্যু;তে এভা;বেই শো;ক প্র;কাশ করলেন ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান।

শনিবার সকালে বা;র্ধ;ক্যজ;নিত কারণে রাজধানীর সূ;ত্রাপু;রে নিজ বাসায় শেষ নিঃ;শ্বা’স ত্যাগ করেন তিনি।এ টি এম শামসুজ্জামানকে প্রাজ্ঞজন ও সহ’জ মানুষ আখ্যা দিয়ে শাকিব খান বলেন, “চলচ্চিত্র অঙ্গনে প্রা;জ্ঞজনদের একজন তিনি। তবে এতো সহ’জ মানুষ ছিলেন, যার সাথে সবকিছু অকপটে বলা যেত।

সর্বদা সুপরাম’র্শ পেয়েছি এই গুণী মানুষটির কাছ থেকে। সবকিছু ছাপিয়ে এটি এম আঙ্কেল ছিলেন অ’ত্যন্ত রসবোধ সম্পন্ন একজন মানুষ।শুধু সিনেমায় নয়, ব্যক্তিজীবনে দারু;ণ হিউ;মা’র স;ম্পন্ন মা;নুষ ছিলেন তিনি। রঙের মানুষ। মুহূ;র্তেই আসর জমি;য়ে দিতে পারতেন, কিন্তু একই সঙ্গে আবার অ’ত্যন্ত ব্যক্তিত্ববান।”

তিনি আরো বলেন, “নাট’ক, সিনেমা, লেখালেখি, পড়াশোনা—সব মাধ্যমে এ টি এম শামসুজ্জামান ছিলেন সমুজ্জ্বল। অ’ভিনেতা ছাড়াও ছিলেন একজন চ’মৎকার লেখক, পরিচালক, চিত্রনাট্যকার ও কাহিনিকার। এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া এই সময়ে দুস্কর।”কাজ ও কাজের বাইরে এ টি এমের স;ঙ্গে অ;ন;ন্তর;ঙ্গ স’ম্পর্ক ছিল শাকি;বের। রয়েছে অসংখ্য স্মৃ’তি। তাই তাঁর প্রয়াণে একজন অ’ভি;ভাবক হা;রা;নোর শো;ক অনুভব করছেন তিনি।