সিএমপির ‘মানবিক পুলিশ ইউনিট’ থেকে সরিয়ে দেয়া হলো শওকতকে

অ’সহায় রো’গীদের নিজের টাকায় সেবার ব্যবস্থা করে প্রশংসিত হয়েছিলেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) কনস্টেবল শওকত। দীর্ঘদিন নীরবে কাজ করলেও ২০১৯ সালে ২৯ নভেম্বর নগর পুলিশের মাসিক কল্যাণ সভায় তার বি’ষয়টি তৎকালীন সিএমপি কমিশনার মাহবুবর রহমানের সুনজরে আসে। সঙ্গে সঙ্গে তিনি শওকতের নেতৃত্বে একটি ‘মানবিক পুলিশ ইউনিট’ চালু করেন।

তবে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি নগরের দেওয়ানহাট এলাকায় একটি ওয়াজ মাহফিলে দেয়া ‌‘বি’তর্কি’ত’ ব’ক্তব্যের জেরে তাকে ‘মানবিক পুলিশ ইউনিট’ থেকে সরে যেতে হলো। বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) নগর পুলিশের উপ-কমিশনার (সদর) আমির জাফর স্বাক্ষরিত এক আদেশে তাকে বদলি করা হয়।

শওকতের বক্তব্য নিয়ে ‘আলেমরা’ ডবলমুরিং থানায় একটি জি’ডি করেছেন বলে সিএমপির একাধিক সূত্র জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছে। তাদের আ’পত্তির মুখে শওকতকে বদলি করা হলেও নগর পুলিশ কর্মকর্তারা বলছেন ‘নিয়মিত বদলির অংশ হিসেবে’ তাকে অন্য দায়িত্বে পাঠানো হয়েছে।

এ বি’ষয়ে জানতে চাইলে নগর পুলিশের উপ-কমিশনার (সদর) আমির জাফর বলেন, ‘শওকত দীর্ঘদিন এক জায়গায় ছিলেন। তাই নিয়মিত বদলির অংশ হিসেবে তাকে এ ইউনিট থেকে বন্দর জোনে বদলি করা হয়েছে।’