Wednesday , September 22 2021

আয়াতুল্লাহ সিসতানির সঙ্গে পোপ ফ্রান্সিসের ঐতিহাসিক বৈঠক

ইরাকের শিয়া মুসলমানদের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা গ্র্যান্ড আয়াতুল্লাহ আলী সিসতানির সঙ্গে ঐতিহাসিক বৈঠক করেছেন ক্যাথলিক খ্রিষ্টানদের ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস। ইরাকের পবিত্র শহর নাজাফে রুদ্ধদার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। তবে বৈঠকে গণমাধ্যমের কোনো ক্যামেরা ঢুকতে দেয়া হয়নি।

আজ শনিবার (০৬ মার্চ) বাগদাদ থেকে ১৬০ কিলোমিটার দূরে শিয়া মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের কাছে তীর্থস্থান হিসেবে পরিচিত নাজাফে পৌঁছান ক্যাথলিক গুরু পোপ ফ্রান্সিস। পোপের সফরকে কেন্দ্র করে ব্যাপক নিরাপত্তা জোরদার করা হয় সেখানে। হযরত আলী এর সমাধিসহ বিভিন্ন দিক থেকে শিয়াদের কাছে খুবই তাৎপর্যপূর্ণ এই শহর। এছাড়া হযরত ইবরাহিম সহ বহু নবীর জন্ম এখানে।

উভয় নেতার এই বৈঠক পবিত্র নাজাফ শহরে অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত কয়েক মাস ধরে ইরাকের পরিস্থিতি বেশ অরাজক। এরই মধ্যে প্রথমবারের মতো ইরাক সফরে এলেন পোপ ফ্রান্সিস। এমনকি এবারই প্রথম শীর্ষ কোনও শিয়া ধর্মীয় নেতার সঙ্গে বৈঠক করলেন খ্রিস্টানদের এই ধর্মগুরু।

পোপও ধর্মীয় কমিউনিটিগুলোকে এক সঙ্গে কাজ করতে আহ্বান জানান। ৪৫ মিনিটের ওই বৈঠকের পর ভ্যাটিকান একটি বিবৃতি প্রকাশ করেছে। সেখানে হয়েছে, পোপ ধর্মীয় সম্প্রদায়ের মধ্যে সহযোগিতা এবং বন্ধুত্বের গুরুত্বের ওপর জোরারোপ করেছেন, যাতে পারস্পরিক শ্রদ্ধা ও সংলাপের মাধ্যমে সবাই ইরাকের ভালোর জন্য অবদান রাখতে পারে।

আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতি বাড়াতে ৮৪ বছর বয়সী পোপ বেশ কিছু মুসলিম প্রধান দেশ ভ্রমণ করেছেন। এই তালিকায় তুরস্ক, জর্ডান, মিশর, বাংলাদেশ, আজারবাইজান, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ফিলিস্তিনও রয়েছে। ২০১৭ সালে তিনদিনের সফরে বাংলাদেশ এসেছিলেন পোপ ফ্রান্সিস।