Wednesday , September 22 2021

সকল ধর্ম শেষ হয়ে গালেও হিন্দু ধর্ম অনন্তকাল থেকে যাবে: তসলিমা নাসরিন

বাংলাদেশের প্রখ্যাত লেখিকা তসলিমা নাসরিন বলেছেন, হিন্দু ধর্মের মাত্র শুরু পাঁচ হাজার বছর আগে। অনেক আক্রমণ হয়েছে হিন্দু ধর্মের উপর। সব সহ্য করে টিকে আছে হিন্দু ধর্ম।

তিনি বলেন, আমি মনে করি অন্যচ সকল ধর্ম একদিন শেষ হয়ে যাবে। কিন্তু হিন্দু ধর্ম অনন্ত কাল অক্ষত থাকবে। তাঁর যুক্তি, প্রায় সকল হিন্দু নিষ্ঠার সঙ্গে ঈশ্বরের আরাধনা করেন, মনেপ্রাণে মেনে চলেন তাঁদের ধর্মীয় রীতি।
এবার আবারও সোশ্যাল মিডিয়া টুইটারে বিতর্কিত পোষ্ট করলেন তসলিমা। প্রায় দেড় যুগ ধরে তিনি নির্বাসনে দিনযাপন করছেন। তাসলিমা প্রথম নারীর জরায়ুর স্বাধীনতার দাবি তুলেন।

কিছুদিন আগেই উত্তরপ্রদেশে ১২ জন মুসলিম ব্যাক্তি ইসলাম ত্যাগ করে সনাতন হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করেছিলেন। সেই খবরের রেশ কাটতে না কাটতে আরো একটা বড়ো খবর সামনে আসছে। আসলে খবর আসছে যে, জামা মসজিদ সুলতানপুরির মৌলবী ইসলাম ত্যাগ করে হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করেছেন।

ইসলাম ত্যাগ করে উনি উনার পূর্বপুরুষদের সনাতন হিন্দু ধর্ম স্বীকার করেছেন। ইসলাম ছাড়ার পর নিজের শুদ্ধিকরণ করার পর উনি হিন্দু হয়ে গিয়েছেন। উনার নামকরণ করার প্রক্রিয়া এখনো সম্পন্ন হয়নি বলেই দাবি অনেকের।

সুলতানপুরী জামা মসজিদের মৌলবী হাফিজ বারকাতুল্লাহ আহমেদ নিসার খান ইসলাম ত্যাগ করে হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করেছেন। সম্পূর্ণ বিধি বিধান মেনে উনি সনাতন ধর্ম স্বীকার করেছেন।

উনি একজন হাফিজ ছিলেন এটা একটা ইসলামিক পদবি, যার অর্থ উনি ইসলামের সমস্ত বইতে মাস্টারি করেছেন। উনি ইসলামের সমস্ত বই অধ্যয়ন করে তাতে সর্বোচ্চ জ্ঞান অর্জন করেছেন। হাফিজ বারকাতুল্লাহ আহমেদ নিসার খান তার পুরো জীবন ইসলামকে দেখেছেন, পড়েছেন এবং পালন করেছেন এমনকি মৌলবীও হয়েছিলেন।

এরপর উনি পবিত্র সনাতন হিন্দু ধর্মের অধ্যয়ন করেছিলেন। বলা হচ্ছে, হাফিজ বরকাতুল্লাহ যে সমস্ত প্রশ্নের উত্তর ইসলামে পাননি, সেগুলো তিনি সনাতন হিন্দু ধর্মে পেয়েছিলেন, তাই তিনি শেষপর্যন্ত ইসলাম ত্যাগ করার সিদ্ধান্ত নেন।
বলা হচ্ছে, ৪ অক্টোবর হাফিজ বরকাতুল্লাহ ইসলাম ত্যাগ করে সনাতন হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করেছেন। উনি দীক্ষা ও বিধির সাথে পবিত্র যজ্ঞও করে নিজেদের পূর্বপুরুষদের ধর্মে ফিরে আসেন।

প্রসঙ্গত জানিয়ে দিই, কোনো ব্যক্তি যদি ইসলাম ত্যাগ করে সনাতন হিন্দু ধর্ম স্বীকার করে নেয়, তাহলে সেটাকে ধর্মান্তরণ না বলে ঘর ওয়াপসী বা ঘর ফেরত (ঘরে ফিরে আসা) বলা হয়।
কারণ সবার পূর্বজ হিন্দু ছিলেন, তাই ধর্ম পরিবর্তন নয় বরং নিজের ধর্মে ফিরে আসা বলে গণ্য করা হয়, এই সমস্ত ঘটনাকে। স্থানীয় হিন্দু ধর্মাবলম্বীর মানুষেরা হাফিজ বরকাতুল্লাহকে সনাতন হিন্দু ধর্মে স্বাগত জানিয়েছেন