কু’মিল্লায় বিয়ে বা’ড়িতে মে’য়েদের উ’ত্ত্যক্ত করা নিয়ে সং’ঘর্ষে নি’হত ২, আ’হত ২০

প্রাথমিক পর্যায়ে ছেলে ও মেয়ে নির্বাচন হলেই ছেলেপক্ষের এবং মেয়েপক্ষের নিকটতম লোকজন নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় বাগদান। বাগদান মানে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শুরু। কিন্তু কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজে’লার আব্দুল্লাহপুর গ্রামে বিয়ের আগেই গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে মেয়েদের উ’ত্ত্যক্ত করাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সং’ঘর্ষে বাঁধলে এতে ২ জন নি’হত ও অন্তত প্রায় ২০ জন আ’হত হয়েছে।

মৃ’তের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। মা’রাত্মক আ’হত ৪ জনকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নি’হতরা হলেন আব্দুল্লাহপুর গ্রামের হাবিবুর রহমানের ছেলে সাইফুল ইসলাম (২০) ও একই গ্রামের রেনু মিয়ার ছেলে ফাহিম (১৯)। গতকাল বুধবার দিবাগত রাত ১টার দিকে আবদুল্লাহপুর ইনসাফ মার্কে’টের সামনে এই ঘটনা ঘটে।

উক্ত ঘটনা নিয়ে স্থানীয় লোকজনের বরাত দিয়ে ওসি আরিফুর জানান, ওই এলাকায় একটি গায়েহলুদের অনুষ্ঠান চলছিল। তাতে যোগ দেন পাশের মুরাদনগর উপজে’লার গুঞ্জর গ্রামের কিছু যুবক। তারা অনুষ্ঠানের কয়েকজন মেয়েকে উ’ত্ত্যক্ত করছিলেন। বি’ষয়টি নজরে পড়লে বিয়েবাড়ির লোকজন তাদের বা’ধা দেন। এ নিয়ে তর্কাতর্কির পর দুই পক্ষ দেশীয় অ’স্ত্র নিয়ে সং’ঘর্ষে জড়ায়।

ওসি জানান, ঘটনাস্থলেই নি’হত হন একজন। আ’হত ব্যক্তিদের উপজে’লা স্বা’স্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার সময় পথে আরও একজন মা’রা যান। আ’হত অন্যদের সেখান থেকে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। অবস্থার অ’বনতি হওয়ায় তাদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আনা হয়।

ওসি আরও জানান, নি’হত দুই তরুণ বিয়েবাড়ির পক্ষের লোক বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। আ’হত ব্যক্তিদের পরিচয় এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। ঘটনার সঙ্গে জ’ড়িত ব্যক্তিদের গ্রে’প্তারে অ’ভিযান চলছে।