ঘন্টা চুক্তিতে যা করছে কলেজে’র ছাত্রীরা

ডিজিটাল বাংলাদেশে স’বকিছুই যেন ডি’জিটালের হাওয়া। ডিজিটাল হওয়ায় ভা’লোর পাশাপাশি আ’ছে খা’রাপ। এরই অংশ হিসাবে বর্তমা’নে রা’জধানীতে অবাধে চলছে ফোনে যৌ’’**’তা।

আর ঢাকার তরুণীরা এক ঘন্টা বা দুই ঘন্টার চুক্তিতে এই ফোন ক’রতে বি’জ্ঞাপনের জ’ন্য ব্যবহার করছে বিভিন্ন ওয়েবসাইট, পাশাপাশি আ’ছে ফেস’বুকেরও ব্যবহার। ফলশ্রুতিতে ফোন সে0*ক্স বাণিজ্য মহা’নগরীতে আর এই জ’ন্য আ’পনাকে অগ্রিম বিকাশ বা ফেলিক্সিলোড ক’রতে হবে নির্ধা’রিত ফোন নম্বরে। নচেৎ সাড়া দেয়া হয় না। এ সং’ক্রা’’ন্ত অনেক ওয়েব সাইটে বি’জ্ঞাপনও প্র’চার করা হচ্ছে।ওই স’ব বি’জ্ঞাপনে ব’লে দেয়া হচ্ছে, বিকাশ বা ফেক্সিলোড মাধ্যম ছাড়া টাকা না পাঠিয়ে দয়া করে কেউ বি’র’ক্ত করবেন না। মিস ক’ল দেবেন না।

এ’কাধিক সূত্রে খোঁ’জ নিয়ে জা’না গেছে, স্কুল-ক’লেজে’র উঠতি তরুণরা এস’ব স’স্প’র্কে জ’ড়িয়ে গেছেন। বিনিময়ে খোয়াচ্ছেন বা’বা-মা’র কাছ থেকে আনা অর্থ। ধীরে ধীরে এটা অনেকটা ম’হা’মা’রি আ’কারে দেখা দিচ্ছে। দেশের নামী এক ওয়েবসাইটে সাথী নামে এক তরুণী ০১৭৩০… এবং ০১৫৫৩৭৫… নম্বর দিয়ে ফোন অ’নৈতিক করার আ’হবান জা’নানো হয়েছে। তিনি ওয়েবসাইটে’র মাধ্যমে ব’লেছেন,

ফোনে অনৈ’তিক কাজ ক’রতে লাগবে এক ঘন্টায় তিনশ’ টাকা। আবার কারো কারো রেট এর চাইতে কম কিংবা বেশি। তবে স’বার ক্ষেত্রেই অগ্রিম বিকাশ না করলে এ সেবা মি’লবে না। মাইশা নামে এক তরুণী নম্বর

দিয়ে ব’লেছে, ফোন সে’* ক’রতে তার স’’ঙ্গে স’বচেয়ে বেশি মজা পাওয়া যাবে। এখনও এ’কা আ’ছি। ফোন করেই দেখু’ন না। আরও পড়ুন : হোক টিভি কিংবা অনলাইন, সবখানেই তার মুখরিত পদচারণা। নাটকে তারথাকা মানেই দর্শকের বাড়তি আগ্রহ, ভালো লা’গা। বৈচিত্রময় চরিত্রে অভিনয় করে তিনি নিজেকে প্রতিষ্ঠিত ক’রেছেন এ প্রজ’ন্মের চাদিহাসম্পন্ন একজন অভিনেতা হিসেবে।

ম্যাঙ্গো স্কোয়াড নামের একটি ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে যাত্রা শুরু করা ইউটিউবার শামীম হাসান সরকার আজ তাই সময়ের জনপ্রিয় অভিনেতার নাম।
স’ম্প্রতি ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট সিজন থ্রি’-তে শামীমের না থাকা নিয়ে শোবিজে আলোচনার শেষ নেই। অনেক দর্শক এই বি’চ্ছেদ মানতে না পেরে নাটকের টিমের স’মালোচনাও করছেন।

তবে শামীম সবরকম বিত’র্ক এড়িয়ে চলতে চান। যারা তাকে মিস করবেন বলে মন খা’রাপ করছেন তাদের ভালোবাসাকে হৃদয়ে তুলে নিয়েছেন শ্রদ্ধায়, ভালো কাজে’র ফিডব্যাক হিসেবে। তিনি জা’নান, শুধু ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’-ই নয়, স’ম্প্রতি সিদ্ধা’ন্ত নিয়েছেন সবরকম ধারাবাহিক নাটক থেকে বিরতি নেয়ার।শামীম হাসান সরকার বলেন, ‘আমি আর কোনো ধারাবাহিকে অভিনয় করবো না। এ নাটকগুলোতে অনেক সময় দিতে হয়। যার ফলে অনেক নির্মাতার কাজগুলো পছন্দ হলেও ক’রতে পারি না।

তাছাড়া ধারাবাহিক ক’রতে গেলে একটি চরিত্রের মধ্যে আ’টকে থাকতে হয়। আমি বৈচিত্রময় কাজ ক’রতে চাই। আশা করছি দর্শক বিষয়টি ইতিবাচকভাবে নেবেন। সবসময় ভালোবাসা দিয়েছেন, ভবিষ্যতেওভালোবাসবেন। তাদের জন্যই ম্যাঙ্গো স্কোয়াড থেকে আমি আজকের অভিনেতা শামীম হয়েছি।’ সেইস’ঙ্গে শামীম হাসান সরকার জা’নান, তিনি তার প্রিয় ‘ম্যাঙ্গো স্কোয়াড-কেও সময় দিতে চান।

বর্তমানে শামীম হাসান সরকার অভিনীত ‘ফ্যামিলি ক্রাইসিস’ ধারাবাহিকটি প্র’চার হচ্ছে। এটি পরিচালনা করছেন মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ। এ নাটকটি শেষ হলে আর কোনো ধারাবাহিক নাটকে অভিনয়প্রসঙ্গত, মাবরুর রশিদ বান্নাহ পরিচালিত ‘নাইন অ্যান্ড হাফ’ নাটক দিয়ে শোবিজে প্রবেশ করেন শামীম। এরপর আর তাকে পেছনে ফি’রে তাকাতে হয়নি। একের পর এক নাটকে কাজ ক’রেছেন।সর্বশেষ শামীমের ‘বয়ফ্রেন্ডের মা’ নাটকটি মু’ক্তি পেয়েছে ইউটিউবে। একদিনেই এ নাটকটি এক মিলিয়নেরও বেশি দর্শক দেখে ফে’লে ছেন। এই নাটকে শামীমের মায়ের চরিত্রে মনিরা মিঠু ও প্রেমিকার চরিত্রে পারসা ইভানা অভিনয় ক’রেছেন।এছাড়াও শিগগিরই প্র’কাশ হতে যাচ্ছে তার নতুন নাটক ‘ফ্যাটলাক’। এখানে শামীমের বিপরীতে দেখা যাবে তানিয়া বৃষ্টিকে। মাহমুদ মাহিন পরিচালিত নাটকটিতে আরও দেখা যাবে মা’রজুক রাসেলকে।