আরব দেশগুলোর অপচয় করা খাবার দিয়ে ১০০ কোটি মানুষকে খাওয়ানো সম্ভব

প্রতি বছর বিশ্বে প্রচুর পরিমাণ খাবার নষ্ট হয়। এসব খাবার নষ্টের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে আরব বিশ্বের দেশগুলো। ২০১৯ সালে বিশ্বে ৯৩১ মিলিয়ন টন খাবার অপচয় হয়েছিল।

জাতিসংঘের পরিবেশ কর্মসূচি (ইউএনইপি) চলতি মাসের শুরুতে জানায়, কেবল আরব বিশ্বের দেশগুলোতেই ওই বছর ৪০ মিলিয়ন টন খাবার নষ্ট হয়েছে, যা দিয়ে ১০০ কোটি মানুষকে খাওয়ানো সম্ভব।

আন্তর্জাতিক এই সংস্থাটি জানিয়েছে, ২০১৯ সালে সবচেয়ে বেশি খাবার অপচয় করেছে মিশর। দেশটি ওই বছর ৯ মিলিয়ন টন খাবার নষ্ট করেছে। এই তালিকায় এরপর রয়েছে- ইরাক (৪.৭৩ মিলিয়ন টন), সুদান (৪.১৬ মিলিয়ন টন), আলজেরিয়া (৩.৯১ মিলিয়ন টন), সৌদি আরব (৩.৫৯ মিলিয়ন টন), মরক্কো (৩.৩১ মিলিয়ন টন)।

এছাড়া ইয়েমেন (৩.০২ মিলিয়ন টন), সিরিয়া (১.৭৭ মিলিয়ন টন), তিউনিসিয়া (১.০৬ মিলিয়ন টন)। এই তালিকায় এরপর যথাক্রমে রয়েছে- জর্ডান, সংযুক্ত আরব আমিরাত, লেবানন, লিবিয়া, ফিলিস্তিন, ওমান, মৌরতানিয়া, কুয়েত, কাতার এবং বাহরাইন। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে, কেবল মাত্র ঘরেই খাবার নষ্ট বিষয়টা এমন নয়, বরং অনেক সময় ক্রেতা কাছে পৌঁছানোর সময় এটা হয়।

ইউএনইপি জানিয়েছে, ঘর, রিটেইল শপ এবং ফুড সার্ভিস ইন্ডাস্ট্রিতে প্রতি বছর ৯৩১ মিলিয়ন টন খাদ্য অপচয় হয়। তবে শুধু ঘরেই প্রায় ৫৭০ মিলিয়ন টন খাদ্য অপচয় হয়। ২০৩০ সাল নাগাদ খাদ্যের অপচয় অর্ধেকে কমিয়ে আনার লক্ষ্যমাত্রা হাতে নিয়েছে ইউএনইপি।